08
Mar

দেয়ালেরও আছে প্রাণ …………………….

আমাদের মনমানসিকতা আমাদের ঘরের অবস্থার ওপর অনেকাংশে নির্ভরশীল। ঘরের আসবাবপত্র, আসবাবপত্রের আকার আকৃতি, ঘরের গোছালো কিংবা অগোছালো ভাব সব কিছুর প্রভাবই আমাদের মনের ওপর পড়ে। এমনকি ঘরের দেয়ালের রঙের প্রভাবও পড়ে আমাদের মনে। গোছানো ঘরে ঢুকে মনটাই ভালো হয়ে যায়। আবার দেয়ালের নীল রঙ মনে বিষণ্ণতার জন্ম দেয়। তাই প্রায় সবাই চান নিজের ঘরটাকে আরেকটু সাজিয়ে গুছিয়ে রাখতে। কিন্তু অনেক সময় একটি গোছালো ঘরও অগোছালো মনে হয় অনেক কারনে। তাই আজকে আপনাদের জন্য রইল ঘরের দেয়াল সাজানোর কিছু বুদ্ধি। একটু বুদ্ধি খাটিয়েই দেখুন না কিভাবে ঘরের চেহারাটাই বদলে যায়।

1মনের রঙে রাঙান দেয়াল

ঘরের দেয়ালের রঙের প্রভাব আমাদের মনের ওপর পড়ে সবচাইতে বেশি। নিজের পছন্দের রঙ যদি দেয়ালে থাকে তবে ঘরে ঢোকার পরপরই মন অনেক ভালো হয়ে যায়। কাজকর্মে স্পৃহা আসে। অনেকেই ভাবেন ঘরের দেয়াল সাদা কিংবা অফ হোয়াইট হলেই ঘর ভালো দেখায়। আসলে ঘরে যে কোন রঙের খেলাই ভালো লাগবে। নিজের মনের মত করে দেয়াল রাঙিয়ে নিন। চাইলে কনট্রাস্ট করে ২ টি রঙ ব্যবহার করতে পারেন একটি ঘরের চার দেয়ালে। দেখবেন ঘর যেমন সুন্দর লাগছে তেমনি আপনার মনও উৎফুল্ল থাকছে।

দেয়াল জোড়া স্মৃতির পাতা

দেয়াল সাজনোর আরেকটি সহজ ও সুন্দর উপায় হচ্ছে দেয়ালে ছবি লাগানো। বিভিন্ন আকার আকৃতির ফ্রেমে নিজের কিংবা নিজের পরিবারের সকল স্মৃতি বন্দি করে ঝুলিয়ে দিন দেয়ালে। মনের মত করে ছবি বাছাই করুন। চাইলে একটি/ দুটি বড় ছবি বাঁধাই করে ঝুলিয়ে রাখতে পারেন দেয়ালে। দেখবেন দেয়ালটাই মূল আকর্ষণে পরিণত হয়েছে।

Example-5paintingদেয়ালে রাখুন পেইন্টিংস

একটি ভালো ও সুন্দর পেইন্টিংস ঘরের চেহারা পাল্টে দিতে বাধ্য। পেইন্টিংস যে শুধুমাত্র দামীই হতে হবে এমন কোন কথা নেই। সাধারণ পেইন্টিংস একটু বুদ্ধি করে দেয়ালে ঝুলিয়ে দেখুন ঘরটি কতটা আকর্ষণীয় লাগছে। পেইন্টিংস আপনার সৃজনশীল মনের পরিচয়বাহক হিসেবেও কাজ করবে।

দেয়ালে এঁকে দিন মনের ভাষা

দেয়ালে আকাআকি করা শুধুমাত্র বাচ্চাদের কাজ ভেবে হেসে উড়িয়ে দেবেন না। বর্তমানে দেয়াল সাজাতে সবচাইতে সহজ ও সুন্দর পদ্ধতি হচ্ছে দেয়ালে আঁকা চিত্র কর্ম। অনেকেই আছেন যারা নিজের শৈল্পিক মনের চিন্তা ভাবনা মনেই দাবিয়ে রেখেছিলেন। তারা একটুখানি সময় বের করে এনামেল পেইন্ট ও তুলি নিয়ে লেগে যান কাজে। দেখবেন আপনার মনের ভাষা কিভাবে দেয়ালকে সাজিয়ে তুলছে। আর যদি তা না পারেন তবে একজন প্রফেশনাল দেয়াল পেইন্টার দিয়ে আঁকিয়ে নিন আপনার পছন্দের কিছু। ঘরে ঢুকে এই চিত্রকর্ম চোখে পড়লেই পুরো দিনের ক্লান্তি কোথায় পালাবে টেরও পাবেন না।

wall shelfদেয়ালে ঝুলন্ত শেলফ

আজকাল অনেককেই দেয়াল সাজানোর আরেকটি সুন্দর জিনিষ করতে দেখা যাচ্ছে। আর তা হল ঝুলন্ত শেলফ। একটি পুরো দেয়ালের বিভিন্ন ভাবে সাজানো যায় এই শেলফগুলো। এতে পছন্দের জিনিষ সাজিয়ে রাখতে পারেন। কিংবা বই গুছিয়ে রাখতে পারেন। দেখবেন ঘরটা গোছালো লাগছে দেখতে।